২৫ অক্টোবর ২০২১,   ঢাকা, বাংলাদেশ  
Login          

নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি মিয়ানমার সেনা শাসকের




আজ ফের বহুদলীয় নির্বাচন আয়োজনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন মিয়ানমারের সেনা শাসক মিন অং হলাইং। দক্ষিন-পূর্ব এশীয় দেশগুলোর সহযোগিতা সংস্থার (আসিয়ান) যেকোন বিশেষ প্রতিনিধির সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত রয়েছেন বলেও জানান তিনি। খবর রয়টার্স।


জোর করে ক্ষমতা দখলের প্রায় ছয় মাস পর আজ একটি টেলিভিশন ভাষণে নতুন একটি বহুদলীয় নির্বাচন আয়োজনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে মিয়ানমারের সশস্ত্র বাহিনী প্রধান বলেন, আসিয়ান কাঠামোর মধ্যে থেকে সংস্থাটির সঙ্গে যেকোন ধরণের সহযোগিতার জন্য প্রস্তুত আছে মিয়ানমার। এমনকি মিয়ানমারে আসিয়ানের বিশেষ দূতের সঙ্গে সংলাপেও প্রস্তুত রয়েছি।


চলতি বছরের শুরুর দিকে আয়োজিত সাধারণ নির্বাচনে অং সান সু চি নেতৃত্বাধীন দল জয়ী হওয়ার পর জোর করে ক্ষমতা দখল করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। তখন থেকে সৃষ্ট রাজনৈতিক অস্থিরতায় কয়েক শতাধিক বিক্ষোভকারী প্রাণ হারান।


সোমবার আসিয়ানের পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের একটি বৈঠক আয়োজনের কথা রয়েছে। মিয়ানমারে চলমান সহিংসতার অবসান ঘটানো এবং বিবাদমান পক্ষগুলোর মধ্যে সংলাপ আয়োজনে একজন বিশেষ দূত চূড়ান্ত করতে পারে তারা।


এদিকে মিয়ানমারের সেনা শাসক মিন হলাইং বারবার গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় ফিরে যাওয়ার অঙ্গীকার করলেও এক্ষেত্রে কোন সময়সীমা উল্লেখ করছেন না। আজকের ভাষণেও একই কথার অনুরণন শোনা যায়। সিনিয়র জেনারেল মিন হলাইং বলেন, আমরা গণতন্ত্র ও ফেডারেল ব্যবস্থার ইউনিয়ন প্রতিষ্ঠার অঙ্গীকার করছি।


সেনা অভ্যুত্থানের পর থেকে দেশজুড়ে চলমান বিক্ষোভ ও অবরোধে সরকারী ও বেসরকারী খাত অচল হয়ে পড়েছে। সীমান্তবর্তী প্রদেশগুলোতে বিচ্ছিন্নতাবাদী তত্পরতা বেড়েছে। বৈদেশিক বিনিয়োগকারীরা নতুন বিনিয়োগ থেকে পিছিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশের এ প্রতিবেশী দেশটি থেকে ব্যবসা ঘুটিয়ে নিয়েছে টেলিনরের মতো টেলিকম জায়ান্ট।


দ্য অ্যাসিস্টেন্স এসোসিয়েশন ফর পলিটিক্যাল প্রিজনার্সের অভিযোগ, ১ ফেব্রুয়ারির ক্যুর পর সামরিক জান্তার হাতে ৯৩৯ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে। এছাড়া ৬ হাজার ৯৯০ জন বিরোধীকে আটক করেছে তারা।